ছড়াটুন | The Daily Star Bangla

ছড়াটুন

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

নায়ক- নায়ক একটাই;চলা বলা পোশাকে।অভিনয়ে ঝানু বড়;চেনে সবে উহাকে। লেখায় আঁকায় বলায়;ছড়িয়েছে রোশনাই। গুণিজনে কহেন; আফজাল হোসেন।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

লেখা রবে ঢের আলী যাকের- যতটুকু পথ যান; আলো থাকে ছড়িয়ে। অভিনয়ের সুধাতে; মোহে রাখে ভরিয়ে। মঞ্চের আলো ছায়া; বড় বেশি প্রিয় তার। কখনো সে ম্যাকবেথ; কখনো কিং লিয়ার। গলা ছেড়ে চিৎকারে; জোরে ডাকে নুরলদীন। ফিরে পাবে আর কি; মায়ামাখা সেই দিন? মঞ্চের ইতিহাসে; লেখা রবে ঢের। সবার প্রিয় মানুষ; আলী যাকের।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

কাকে আঁকে অর্ণব?- বসে থেকে অর্ণব; কাকে জানি ভাবছে। নীলচে তারা দিয়ে; কাকে জানি আঁকছে। মনে মনে সুরে সুরে; মায়া জাল বুনছে। নয়া গানে গিটারে সে; কার ধুন তুলছে?

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

ধন্যা বন্যা - রবি বাবুর গান; তার কণ্ঠে পায় প্রাণ। সুরে আঁকেন ছবি; মস্ত গানের কবি। বঙ্গভূষণ জয়ী; খুব মমতাময়ী। সুরে গানে ধন্যা; প্রিয় দিদি বন্যা।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

আয়নাবাজ- কত রূপে কত ঢঙে; আসে মিঞা পর্দায়। তারে দেখে মানুষেরা; বারেবারে চমকায়। অভিনয়ে পাকা তিনি; চোখে আনে জল। ঢুকে গিয়ে অভিনয়ে; ভুলিয়ে দেন সকল। বড় বেশি আয়নাবাজি; হয়ে গেছে স্যার। কারো চোখে আলাভোলা; চঞ্চল নাম তার।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

মোগল বস- দুটি হাতে কত কিছু; ভালোভাবে করা যে যায়। তাকে দেখে নবীনেরা; নিতে পারে ভালো শিক্ষায়। বিন্দু থেকে সিন্ধু; বাড়িয়েছেন বহর। নামে তাকে চেনে সবে; গলি থেকে নগর। টিভির মোগল বস; কাজেই দিনভর। সবার প্রিয় তিনি; নাম যে সাগর।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

মন্দরাজা - কত ঘুষি খেয়েছেন; শয়ে শয়ে থাপ্পড়। নায়িকারা বলেছে; তুমি ব্যাটা খচ্চর। মন্দের গুরু মিশা; সেটা শুধু সিনেমায়। কতখানি হারামি সে; বলো সেটা ভাবা যায়? পর্দার বাইরে মন্দ সে নয়; ওটা শুধুই অভিনয়।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

প্রিয় তুমি প্রিয়- চোখে রেখে চোখ; কিছু কথা হোক। দূরে কেন তুমি; ও মৌসুমী। মায়াবতী রূপবতী; প্রিয় তুমি প্রিয়। কতভাবে ডাকি সখী; দিও, সাড়া দিও।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

প্রিয়তমা প্রাণের চেয়ে প্রিয়; রূপের নাইকো সীমা হৃদয়ের সব কথা; চাঁদের মতো পূর্ণিমা। গানে গানে বলি শোন; তুমি প্রিয়তমা। বুকের মাঝে তোমার জন্য; অনেক কথা জমা।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

একজনই গানে গানে সুরে সুরে; মুছে গেল সীমানা। দমা দম মাস কালেন্দারে; ছেলে বুড়ো দিওয়ানা। শিল্পী হয়ে সব হৃদয়ে; রয়ে যাবেন চিরদিন। রুনা লায়লা একজনই; থাকবেন অমলিন।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

কোকিল কণ্ঠী কোকিল ভোলে গান; উঠলে গেয়ে সাবিনা। বাঙালিরা সে কথাটা; কে বলো জানি না। গানের সুরে অনেক দূরে; হারিয়ে যায় মন। বাংলার কোকিল; শুধুই একজন।

জাহিদ আকবর-এর ছড়ায় সাদাত-এর আঁকায়

নবাব বেগম কেচ্ছা অপু এসে লাইভে; দিলো যে সব ফাঁস করে। ছিল যে সব আড়ালে; আটটা বছর ধরে। মেনে নিলো খান যে; অপুকে তাই শেষে। সঙ্গে এলো জয়; রাজার ছেলের বেশে। ঈদে তারা আসছেন; নিয়ে ছবি রাজনীতি। নবাব রংবাজসহ; আরো কত প্রীতি।

Top